Bike Loan

Unknown Facts: কালো নয়, আগে টায়ারের রং ছিল সাদা! কিন্তু জানেন, টায়ারের রং কেন বদলানো হল?

Aindrila Dhani

Published on:

Unknown Facts

Unknown Facts: চলার সময় আমরা বছরের পর বছর ধরে বিভিন্ন ধরনের, বিভিন্ন কোম্পানির গাড়ি দেখছি। এই সমস্ত গাড়ির মধ্যে একটি জিনিসের মিল রয়েছে এবং তা হল এই সমস্ত গাড়ির টায়ারের রঙ। আমরা সব গাড়িতে শুধু কালো রঙের টায়ারই দেখেছি। কিন্তু, আপনি কি কখনও ভেবে দেখেছেন কেন টায়ারের রঙ সবসময় কালো হয়? কেন টায়ারের রঙ সাদা বা সবুজ কিংবা হলুদ হয় না? এই প্রশ্নের উত্তর জেনে নিন আজকের প্রতিবেদনে।

গাড়ির টায়ার সম্পর্কে বলতে গেলে, টায়ার কিন্তু যে কোনও গাড়ির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। কারণ টায়ারের সাহায্যেই যে কোনও গাড়িকে রাস্তার সংস্পর্শে নিয়ে আসে। টায়ারগুলি বছরের পর বছর ধরে অটোমোবাইল শিল্পে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

আগে কিন্তু টায়ারের রং সাদা ছিল

1895 সালে নিউমেটিক টায়ার ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হত। এই টায়ারের রঙ ছিল সাদা। কারণ এই টায়ারে ব্যবহৃত রাবারের রঙই সাদা ছিল। দক্ষিণ কোরিয়ার গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কিয়ার একটি ব্লগ পোস্টে বলা হয়েছে, এই সাদা টায়ারের ব্যবহার দীর্ঘ দিনের জন্য সম্ভব ছিল না। যার কারণে পরবর্তীতে টায়ার তৈরিতে পরিবর্তন আনা হয়েছিল।

পরে কার্বন কালো রঙের টায়ারের ব্যবহার শুরু হয়

এরপর টায়ারের আয়ু বাড়ানোর জন্য এবং তাদের শক্তি বাড়াতে প্রথমে টায়ারের উপর কালি লাগানো হয়েছিল। কিন্তু কয়েক বছর পর, টায়ারের শক্তি বাড়ানোর জন্য সুটের পরিবর্তে কার্বন ব্ল্যাক ব্যবহার করা শুরু হয়। রাবারের সাথে কার্বন ব্ল্যাক মেশালে টায়ারের রং অটোমেটিক কালো হয়ে যায়। কার্বন ব্ল্যাক হল একটি সূক্ষ্ম কালো পাউডার যা টায়ারের শক্তি বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। এটি রাস্তায় গ্রিপ বজায় রাখতেও সাহায্য করে। এছাড়াও কার্বন ব্ল্যাক টায়ার থেকে তাপ বের করতে সাহায্য করে। টায়ারের দৃঢ়তা এবং শক্তিও উন্নত করে এটি।

রাবারে কার্বন ব্ল্যাক না থাকলে টায়ারের কর্মক্ষমতা হ্রাস পায়। এছাড়াও টায়ারের কালো রঙ টায়ারগুলিকে দীর্ঘ সময়ের জন্য নতুন থাকতে সহায়তা করে। অন্যদিকে, টায়ারের রঙ সাদা হলে গাড়ির টায়ার তাড়াতাড়ি নষ্ট হতে শুরু করে দেয়।