Bike Loan

Bajaj Pulsar: 30 হাজারে বাজাজ পালসার কেনার দারুন সুযোগ! সুযোগ আসেনা বার বার, ভুলেও হাতছাড়া করবেন না

Aindrila Dhani

Published on:

bajaj-pulsar-emi-plan

বর্তমান যুগের যুবক-যুবতীদের বেশ পছন্দের রেঞ্জ হল Bajaj Pulsar। কিন্তু বেশি দাম হওয়ার কারণে অনেকেই এই রেঞ্জের বাইক কিনতে পারছে না। আপনার মনে কি Bajaj Pulsar-এর মডেল কেনার ইচ্ছা রয়েছে? তাই আজকের প্রতিবেদন আপনার জন্য।

যদি বাজেটের জন্য Bajaj Pulsar কিন্তু আপনাদের অসুবিধা হয়, তাহলে পুরো টাকা না দিয়েও এই বাইক কিনতে পারবেন। আজ আপনাদের জন্য দারুণ একটি প্ল্যান নিয়ে হাজির হয়েছি আমরা। এখন Bajaj Pulsar কেনার জন্য 30 হাজার টাকা থেকে 40 হাজার টাকা থাকলেই হবে। জেনে নিন বিস্তারিত।

Bajaj Pulsar বাইকের ইঞ্জিন

কোম্পানি Bajaj Pulsar-এ শক্তিশালী ইঞ্জিন ব্যবহার করেছে। এতে আপনারা 124.4cc-র 4 স্ট্রোক টুইন স্পার্ক ইঞ্জিন পেয়ে যাবেন। এই ইঞ্জিন 8.68 কিলোওয়াট শক্তি ও 10.8 নিউটন মিটার টর্ক উৎপাদন করতে সক্ষম।

Bajaj Pulsar বাইকের মাইলেজ

পেট্রোলের উর্ধ্বমুখী দামের কারণে অনেকেই বেশি মাইলেজের বাইক কিনতে পছন্দ করছে না। Bajaj Pulsar তার ব্যতিক্রম নয়। এই মডেলটি প্রতি লিটারে 35 কিলোমিটার থেকে 55 কিলোমিটার মতো মাইলেজ দিতে পারবে।

Bajaj Pulsar বাইকের ফিচার্স

আকর্ষণীয় স্টাইলের পাশাপাশি মন ভালো করা পারফরম্যান্স পেয়ে যাবেন Bajaj Pulsar-এ। এই বাইকের সুরক্ষার দিকে নজর দিয়েছে কোম্পানি। এর সামনের ও পিছনের চাকায় ডিস্ক ব্রেক রয়েছে। এছাড়া নাইট্র্যাকস মোনোশক সাসপেনশন ও টিউবলেস টায়ার রয়েছে। এছাড়া এই বাইকে বেশ কিছু প্রিমিয়াম ফিচারের সুবিধাও রয়েছে। যা যুবক ও যুবতীদের পছন্দ হবে।

Bajaj Pulsar বাইকের দাম

Bajaj Pulsar-এর এক্স শোরুম দাম 82 হাজার 207 টাকা থেকে শুরু হয়েছে। আপনারা চাইলে এই বাইকটি ফাইন্যান্স প্ল্যানে কিনতে চিনতে পারবেন। সেক্ষেত্রে 3 বছরের জন্য প্রতি মাসে 2 হাজার 737 টাকা করে EMI দিতে হবে। এর থেকেও কমে Bajaj Pulsar কেনা সম্ভব।

কীভাবে 30 হাজার টাকায় Bajaj Pulsar কিনবেন?

Bajaj Pulsar এবার মাত্র 30 হাজার টাকায় কেনা সম্ভব। এমনকি মাসে মাসে কিস্তির চাপও নিতে হবে না। Olx-এ Bajaj Pulsar-এর 2014 সালের মডেল উপলব্ধ রয়েছে। এটি আপনারা 30 হাজার টাকায় পেয়ে যাবেন।